1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:১২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য হলেন শাল্লার টিটু দাস সিলেটে বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদের জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জের শামীমসহ ‘দুই জঙ্গি’ ছিনতাই : বিভিন্ন স্থানে পুলিশের ব্লক রেইড আর্তমানবতার সেবায় রেড ক্রিসেন্ট অসাধারণ ভূমিকা রাখছে-নাসির উদ্দিন খান লায়ন্স ক্লাব এর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ উন্নয়নের ক্ষেত্রে ভাটি এলাকা আর পিছিয়ে থাকবে না-পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান সিলেট মোটরসাইকেল পার্টস মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের বার্ষিক সাধারণ সভা খালেদার বাসায় প্রবেশের সড়কে পুলিশের চেকপোস্ট বিজয়ের মাসে বাংলাদেশ বৌদ্ধ যুব পরিষদ’র উদ্যোগে সিলেটে শীতবস্ত্র দান সিলেট শহরতলীর দক্ষিণ সুরমায় অবৈধ শিলংতীর জুয়া ও মাদকের জমজমাট আসর

সুনামগঞ্জে পরকিয়ার জেরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন, ঘাতক আটক

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে রবিবার, ৬ মার্চ, ২০২২
  • ৫৮৬ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টার:

সুনামগঞ্জ শহরের পশ্চিম তেঘরিয়া (বড়পাড়া) এলাকায় পারিবারিক কলহের জের অতপর পরকিয়া জেরে স্বামীর হাতে রিপা বেগম (৩০) নামের এক নারী খুন হয়েছেন। রবিবার দুপুরে পৌর শহরের পশ্চিম তেঘরিয়া (বড়পাড়া) এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে ঘাতক স্বামী আব্দুল হামিদ মিল্টন (৪২) কে আটক করেছে সুনামগঞ্জ  র‌্যাব। সে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের ঘোলঘর এলাকার মৃত লেম্বু মিয়ার পুত্র। ঘটনার সাথে জড়িত গুলজার মিয়াকে খুজছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্র জানায়, গত ১৫ দিন আগে স্বামী আব্দুল হামিদ মিল্টনের সাথে ঝগড়া করে মঈনপুর গ্রাম থেকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের পশ্চিম তেঘরিয়া এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে মঙ্গলকাটা গ্রামের গুলজার আহমদ নামের এক যুবককে স্বামী পরিচয় দিয়ে বসবাস করতে শুরু করেন নিহত নারী রিপা বেগম। সেই খবর পেয়ে পূর্বের স্বামী রবিবার দুপুরে পশ্চিম তেঘরিয়া (বড়পাড়া) এলাকায় এসে তার স্ত্রীর সাথে দরজা লাগিয়ে প্রথমে কথা কাটাকাটি হয় পরে ঘরে থাকা দা দিয়ে রাগের মাথায় ঘাতক স্বামী স্ত্রী’র মাথায় আঘাত করলে স্ত্রী চিৎকার দিয়ে মাটিতে পড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা দরজা খুলতে বললে ঘাতক মিল্টন দরজা খুলে দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে বাসার  মালিক  ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে ঘটনাটি জানালে পুলিশ তাৎক্ষণিক ভাবে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে গুরুতর জখমপ্রাপ্ত নারীকে উদ্বার করে সুনামগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি প্রেরণ করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খুন হওয়া রিপা বেগম (৩০) এর বড় মেয়ে ফাহমিদা জাহান জানান, আমি পাশের ঘরে টিভি দেখছিলাম। হঠাৎ আমার বাবা এসে ঘরের দরজা লাগিয়ে মায়ের সাথে কথা বলতে থাকেন। পরে মায়ের চিৎকার শুনে পাশের ঘরের খালাসহ আমরা সবাই দৌড়ে যাই। পরে বাবাকে দরজা খুলার জন্য অনুরোধ করলে বাবা দরজা খুলে দৌড়ে পালিয়ে যায় এবং মা মাটিতে পড়ে থাকে।

নিহত রিপার আত্মীয় শফিকুর রহমান জানান, মিল্টনের সাথে রিপার সংসার নষ্ট করেছে গুলজার। রিপাকে প্রলোভন দেখিয়ে স্বামী সংসার থেকে নিয়ে আসে গুলজার এবং বড়পাড়া এলাকায় আরিফুর রহমানের বাসায় স্বামী স্ত্রী পরিচয়ে বসবাস করে রিপা বেগমের সমদুয় টাকা পয়সা লুট করে গুলজার এবং গত কয়েকদিন আগে মোটরসাইকেল কিনে রিপার টাকা দিয়ে। এ খুনের প্ররোচনাকারী হিসেবে গুলজারই দায়ী।

বাসার মালিক আরিফুর রহমান জানান, আমাদের বাসায় ১৫ দিন আগে রিপা বেগম ভাড়া নেন। তিনি জানান উনার স্বামী গুলজার আহমদ ও এক মেয়েকে নিয়ে থাকবেন। সেই অনুযায়ী আমরা তাদের বাসা ভাড়া দেই। কিন্তু আজকে হঠাৎ তার প্রথম স্বামী এসে তাকে দা দিয়ে কুপিয়ে চলে যায়। পরে আমি ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে পুলিশকে বিষয়টি অবগত করাই।

সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ) জয়নাল আবেদীন বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন হয়েছেন। ঘাতক স্বামীকে আটক করেছে সুনামগঞ্জ র‌্যাব।

সুনামগঞ্জ র‌্যাবের কোম্পানী কমান্ডার সিঞ্চন আহমদ খুনিকে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, হত্যা কান্ডের সাথে জড়িত মিল্টনকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন