1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. satvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন
  •                          

হাওরাঞ্চলের কথা ইপেপার

ব্রেকিং নিউজ
সহিংসতা করে কেউ পার পাবে না : ইসি আলমগীর তৃতীয় ধাপে দেশের ৮৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ কাল গাজায় মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে ডয়েচে ভেলেকে তথ্যচিত্র তৈরির আহ্বান তথ্য প্রতিমন্ত্রীর স্ত্রী-সন্তানসহ বেনজীরকে দুদকে তলব ক্রিকেট: যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রস্তুতি ম্যাচ বাতিল আনোয়ারুল হত্যা : কলকাতার ওই ফ্ল্যাটের সেপটিক ট্যাংক থেকে মাংসের টুকরা উদ্ধার শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে দুইজন সহকারী প্রভোষ্ট নিয়োগ রাজনীতিতে নারীর ক্ষমতায়নকে ত্বরান্বিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার কাজ করছে— এমপি রুমা চক্রবর্তী সিলেট নাসিং হোস্টেল যেন মিনি কারাগার! পাসপোর্ট অফিসে কোন ধরনের হয়রানী সহ্য করা হবে না— যুগ্ম সচিব নাসরিন জাহান

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে মিথ্যা অপপ্রচার দোয়ারাবাজারে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মানহানির অভিযোগে মামলা দায়ের

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ৯ এপ্রিল, ২০২৪
  • ৫৩ বার পড়া হয়েছে

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি:
দোয়ারাবাজারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে মিথ্যা ও বানোয়াট অপপ্রচার চালিয়ে জনপ্রতিনিধি ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মানহানি ঘটানোর অভিযোগে সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা রুজু হয়েছে । এ ঘটনায় সোমবার বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট কানন আলম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মূলত আজমপুর আশ্রয়ন প্রকল্পের কাজে কিছু হলুদ সাংবাদিক দুর্নীতির সাথে জড়িত থাকায় তার প্রতিবাদ করতে গিয়ে ঘটনার সূত্রপাত ঘটে। প্রধানমন্ত্রীর উপহার আজমপুর সরকারি আশ্রয়ন প্রকল্পের কাজের দূর্নীতির সাথে জড়িত হয়ে প্রকল্পের দূর্নীতি দামা চাপা দেয়ার জন্য উঠেপড়ে কথিত সাংবাদিক উপজেলার নৈনগাও গ্রামের রাজাকার কমান্ডার আব্দুর রশিদের পুত্র আশিক মিয়া, সাংবাদিক মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ হেলালী, আসিশ রহমান, হারুনুর রশিদ, আব্দুল সালিক মিলন তালুকদার, আলাউদ্দিনসহ আরো অজ্ঞাতনামা কয়েকজন। এ ঘটনায় দরখাস্তকারী বাদী অ্যাড. কানন আলমের পিতা মান্নারগাঁও ইউনিয়নের বর্তমান ইউপি সদস্য ফরহাদ আলম প্রতিবাদ করলে দুনীতির সাথে জড়িতরা ক্ষিপ্ত হইয়া উঠে এবং ইউপি সদস্য ফরহাদ আলমের বিরুদ্ধে কুৎসা রটাতে থাকেন এবং ফেইসবুকে মানহানিকর বাক্য ব্যবহার করে পোষ্ট ও প্রচার করতে থাকেন। দূর্নীতির সাথে জড়িত সাংবাদিকরা ক্ষেপে মেম্বারের উপর হামলা, মামলা ও প্রাননাশের হুমকি দিতে শুরু করেন। সেই সাথে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে দলবেঁধে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। শুধু মিথ্যা, অসত্য, বানোয়াট ও কাল্পনিক অপপ্রচার করেই কান্ত হয়নি তারা উল্টো বাদীর প্রবাসী ভাইসহ পিতার বিরুদ্ধে কাল্পনিক তথ্য উপস্থাপন করে দোয়ারাবাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এ ছাড়াও বিভিন্ন লোক মারফত মোটা অংকের চাদা দাবী করে। এমনকি বাদীর পিতার বোজনা মৌজার দখলীয় সম্পত্তি একত্রিত হয়ে আত্মসাতের পায়তারা করছে। তাদের এহেন কার্যক্রমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারসহ আসপাশের নিরপরাধ সাধারন মানুষ। মামলা সূত্রে আরো জানা যায়, কথিত ঐ সাংবাদিকরা ভারতীয় পণ্য চোরাচালানীর সাথেও জড়িত রয়েছে। সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে প্রভাব বিস্তার করে ভারত থেকে চোরাই পথে অবৈধভাবে চিনি, পেঁয়াজ, কমলা, মাল্টা, আপেল, আঙ্গুর, কিচমিচ, গরু, মহিষ ও আগ্নেয়াস্ত্রসহ আরো জিনিসপত্র পাচারের মাধ্যমে সরকারকে রাজস্ব বঞ্চিত করে আসছে। সাংবাদিক পরিচয় দিলেই পার পেয়ে যাচ্ছে তারা। এ বিষয়ে মামলার বাদী অ্যাড. কানন আলম জানান, প্রধানমন্ত্রীর উপহার আজমপুর সরকারি আশ্রয়ন প্রকল্পের কাজে সামান্য অর্থের লোভে দূর্নীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন উপজেলার কথিত কিছু সাংবাদিকরা। স্বাধীনতার পূর্ব হতেই আমারা পারিবারিকভাবেই জনসেবায় নিয়জিত আছি এবং আমার বাবা বর্তমানে একজন জনপ্রতিনিধি ও শালীসি ব্যাক্তিত্ব। তাই আমার বাবা সব সময় অন্যায় অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে আসছেন। তিনি এসব অন্যায়ের প্রতিবাদে করলে ঐ সাংবাদিকরা ক্ষেপে যায়। তারা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে মিথ্যা তথ্য উপাত্ত, পরিচিতি তথ্য ব্যবহার করে ও উস্কানিমূলক অপপ্রচার চালাতে থাকেন। এদের বিরোদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য এবং তাদের এরকম অন্যায় কর্মকান্ডে এলাকায় যে কোন সময় বড় ধরনের সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। এ ঘটনায় বিজ্ঞ সাইবার ট্রাইব্যুনাল সিলেটে আমি একটি মামলা দায়ের করেছি। যার শুনানীর দিন আগামী ১৬ জুন,২০২৪ খ্রি ধার্য্য করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন