1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৬:১০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বন্যার্থদের পাশে সিলেট বিল্ডাস ও শামীমাবাদ যুব সমাজ দি ডেইলী বাংলাদেশ টুডে পরিবারের অর্থায়নে ছাতকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ফতেপুরে বন্যার্তদের মাঝে বিশ্বাস বিল্ডার্স লিমিটেডের খাবার ও কাপড় বিতরণ বন্যায় কবলিত মানুষের পাশে কর্ম সেবা সংস্থা কোস্ট গার্ডের সহায়তায় নতুন জীবন পেল আলীপুরের গৃহবধু হোসনে আরা সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর ত্রাণ বিতরণ সুনামগঞ্জে ত্রাণ বিতরণ করছেন ঢাকা দক্ষিনের আ’লীগ নেতা শেখ মো: আজাহার বন্যায় মোকাবেলায় জনপ্রতিনিধি গ্রামবাসী, প্রশাসন ও পুলিশ একসাথে কাজ করতে হবে- বেনজির আহমদ ভয়াবহ বন্যায় র‌্যাব মানুষের পাশে ছিল পাশে থাকবে- ডিজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন বন্যার্ত মানুষের জন্য যা করনীয় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী তাই করছে- লে.জে.সফিউদ্দিন আহমদ

সাংবাদিক রোজিনাকে হত্যা চেষ্টা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে সুনামগঞ্জ সাংবাদিক ফোরামের নিন্দা ও প্রতিবাদ

স্টাফ রিপোর্টার:
  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ১৮ মে, ২০২১
  • ১৩৯ বার পড়া হয়েছে

পাঁচ ঘণ্টার বেশি সময় সচিবালয়ে আটকে রেখে প্রথম আলোর জেষ্ঠ সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা, হত্যা চেষ্টার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে সুনামগঞ্জ সাংবাদিক ফোরাম নেতৃবৃন্দরা। সোমবার রাতে সংগঠনের সভাপতি কুলেন্দু শেখর দাস ও সাধারণ সম্পাদক মাহতাব উদ্দিন তালুকদার এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের সঙ্গে যে অমানবিক আচরণ করা হয়েছে তা লজ্জাজনক ও স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থি। রোজিনা ইসলাম অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার জগতে খুবই আলোচিত নাম। আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতিও পেয়েছেন তিনি। এমন একজন সাংবাদিক পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গেলে তাঁকে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে শারিরীক, মানসিক নির্যাতন ও মিথ্যা কাল্পনিক তথ্য উপস্থাপন করে অন্যায়ভাবে জেলে পাঠানো দেশের সাংবাদিক সমাজ মেনে নিতে পারছেনা। কী কারণে এভাবে আটকে রাখা হয়েছে, অসুস্থ হওয়ার পরও তাঁকে হাসপাতালে না নেয়ার বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া দরকার। রোজিনাকে হেনস্তা, শারিরীক নির্যাতনকারীদের খুজে বের করতে হবে এবং তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। প্রসঙ্গত, রোজিনা ইসলাম পেশাগত দায়িত্ব পালনের জন্য সোমবার বেলা সাড়ে তিনটার দিকে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে যান। তাঁকে সেখানে একটি কক্ষে আটকে রাখা হয় এবং তাঁর মুঠোফোন কেড়ে নেওয়া হয়। একপর্যায়ে সেখানে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। সচিবালয়ে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নিয়ে যাওয়া হয় রোজিনা ইসলামকে মিথ্যা মামলায় জেলে পাঠানো হয়েছে। তাকে দ্রুত মুক্তির দাবী জানানো হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন