1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ বন্যার্থদের পাশে সিলেট বিল্ডাস ও শামীমাবাদ যুব সমাজ দি ডেইলী বাংলাদেশ টুডে পরিবারের অর্থায়নে ছাতকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ফতেপুরে বন্যার্তদের মাঝে বিশ্বাস বিল্ডার্স লিমিটেডের খাবার ও কাপড় বিতরণ বন্যায় কবলিত মানুষের পাশে কর্ম সেবা সংস্থা কোস্ট গার্ডের সহায়তায় নতুন জীবন পেল আলীপুরের গৃহবধু হোসনে আরা সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর ত্রাণ বিতরণ সুনামগঞ্জে ত্রাণ বিতরণ করছেন ঢাকা দক্ষিনের আ’লীগ নেতা শেখ মো: আজাহার বন্যায় মোকাবেলায় জনপ্রতিনিধি গ্রামবাসী, প্রশাসন ও পুলিশ একসাথে কাজ করতে হবে- বেনজির আহমদ ভয়াবহ বন্যায় র‌্যাব মানুষের পাশে ছিল পাশে থাকবে- ডিজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন

শান্তিগঞ্জে পানিতে ভেসে গেছে মৎস্যচাষীদের স্বপ্ন

শান্তিগঞ্জ প্রতিনিধি
  • আপডেট করা হয়েছে রবিবার, ২২ মে, ২০২২
  • ৪০ বার পড়া হয়েছে

শান্তিগঞ্জে কমতে শুরু করেছে বন্যার পানি৷ নদ-নদীর পানি কমার ফলে উন্নত হতে চলেছে বন্যা পরিস্থিতি। উপজেলার সবকটি ইউনিয়নে বন্যার পানি কমায় স্বস্তি ফিরেছে মানুষের মাঝে। তবে ধীরে ধীরে পানি কমায় চরম দুর্ভোগে আছেন বন্যা কবলিত এলাকার নিম্ন আয়ের মানুষজন। রাস্তাঘাট ডুবে যাওয়া ও কর্মহীন থাকায় অনেকটা অনাহার অর্ধাহারে কাটাতে হচ্ছে তাদের। রোববার(২২ মে) সকালে বিভিন্ন এলাকায় খবর নিয়ে জানা যায়, রাত থেকেই কমতে শুরু করেছে পানি। টানা বৃষ্টির পর সকালে রোদের দেখা মেলায় স্বস্তি ফিরেছে মানুষের মাঝে। তবে ঘরবাড়ি, রাস্তাঘাট এখনো ডুবে থাকায় দুর্ভোগে পড়েছেন মানুষ। অনেক জায়গায় নিরাপদ পানি ও খাদ্যের সঙ্কট থাকায় বেকায়দায় আছেন বানভাসীরা। পানিবন্দি এলাকার অনেকেই বলেন, ‘রবিবার সকাল থেকে অল্প অল্প করে পানি কমছে। কিছুটা স্বস্তি পাচ্ছি আমরা। তবে এখনও অধিকাংশ বাসাবাড়ি পানিতে ডুবে আছে। সেই সঙ্গে অনেক বাসাবাড়িতে খাবারের সংকট আছে। বন্যায় সব ডুবে যাওয়ায় রান্নাবান্না করতে পারছি না। শুকনো খাবার খেয়ে বেঁচে আছি।’এদিকে ভারী বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে সৃষ্ট বন্যায় শান্তিগঞ্জে ৬০-৬৫ টি পুকুরের প্রায় ৫০-৬০ লাখ টাকার মাছ ভেসে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা জাহিদুল ইসলাম। তিনি বলেন, আমরা সরেজমিনে গিয়ে পুকুর দেখে ক্ষয়ক্ষতির তথ্য জেলায় পাঠিয়েছি। কোন সহায়তা আসলে পরবর্তীতে ক্ষতিগ্রস্থদের প্রদান করা হবে। আকস্মিক বন্যায় চরম দুর্ভোগের পাশাপাশি ধান নিয়েও বিপাকে পড়েছেন শান্তিগঞ্জের কৃষকরা। অনেক কষ্ট করে সোনার ফসল ঘরে তুললেও তা রক্ষায় নিয়ে আছে চরম দুশ্চিন্তা। কয়েকদিন পর রোদের দেখা মেলায় আঞ্চলিক মহাসড়ক, বাড়ির ছাদ ও উঁচু জায়গায় ধান শুকানোর হিড়িক পড়েছে। তবে দীর্ঘদিন ধান ভেজা থাকায় পঁচন দেখা দিয়ে অঙ্কুর দেখা দিয়েছে। কেউ কেউ বস্তাবন্দি করে রাখা ধান শুকানোতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। যদি বৃষ্টি না হয় ধান শুকিয়ে ঘরে তুলতে পারবেন এমন আশা কৃষকদের। বন্যা পরিস্থিতিতে নিরাপদ পানির সঙ্কট দেখা দেয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষথেকে বন্যা কবলিত এলাকায় পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট, খাবার স্যালাইন বিতরণ ও বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জসিম উদ্দিন শরিফী। তিনি সবাইকে সচেতন থাকার আহবান জানিয়েছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আনোয়ার উজ জামান বলেন, শান্তিগঞ্জে কমতে শুরু করেছে বন্যার পানি। ইতিমধ্যে উপজেলার কিছু জায়গায় পানিবন্দীদের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন