1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১০:৩৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ বন্যার্থদের পাশে সিলেট বিল্ডাস ও শামীমাবাদ যুব সমাজ দি ডেইলী বাংলাদেশ টুডে পরিবারের অর্থায়নে ছাতকে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ফতেপুরে বন্যার্তদের মাঝে বিশ্বাস বিল্ডার্স লিমিটেডের খাবার ও কাপড় বিতরণ বন্যায় কবলিত মানুষের পাশে কর্ম সেবা সংস্থা কোস্ট গার্ডের সহায়তায় নতুন জীবন পেল আলীপুরের গৃহবধু হোসনে আরা সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর ত্রাণ বিতরণ সুনামগঞ্জে ত্রাণ বিতরণ করছেন ঢাকা দক্ষিনের আ’লীগ নেতা শেখ মো: আজাহার বন্যায় মোকাবেলায় জনপ্রতিনিধি গ্রামবাসী, প্রশাসন ও পুলিশ একসাথে কাজ করতে হবে- বেনজির আহমদ ভয়াবহ বন্যায় র‌্যাব মানুষের পাশে ছিল পাশে থাকবে- ডিজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন

সুনামগঞ্জ পৌর শহরে ব্যাটারী চালিত রিক্সা চালুর দাবীতে মানববন্ধন করেছে মালিক শ্রমিকরা

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে সোমবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৯৮ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ

সুনামগঞ্জ পৌরসভা কর্তৃক শহরে ব্যাটারী চালিত রিক্সা  বন্ধের ঘোষনার প্রতিবাদে এবং বৈধ লাইসেন্স চালু রাখার দাবীতে মালিক শ্রমিকদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল সাড়ে ১১টায় সুনামগঞ্জ জেলা ব্যাটারী চালিত রিক্সা-মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আয়োজনে শহরের আলফাত উদ্দিন স্কয়ার(ট্রাফিক) পয়েন্টেে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে  তিন শতাধিক মালিক ও শ্রমিকরা অংশগ্রহন করেন। জেলা ব্যাটারী চালিত রিক্সা মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি মো. আবুল মনসুর জমশেদ এর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে এ সময় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সাধারন সম্পাদক মো. আল আমীন,মো. রফিকুল ইসলাম,আরাধন সরকার,মো. তোরাব আলী সুমন,মো. সেলিম মিয়া,মো. মজাহিদ মিয়া,মোস্তাক আহমেদ ও শহীদ মিয়া প্রমুখ। শ্রমিক নেতারা বলেন মহামান্য হাইকোর্টের নির্দেশের দোহাই দিয়ে সুনামগঞ্জ পৌরসভার পক্ষ থেকে গত ২৫ ডিসেম্বর শহরে মাইকিং করে আগামী পহেলা জানুয়ারী ২০২২ ইং তারিখ হতে শহরে ব্যাটারী চালিত শুধু রিক্সা বন্ধের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তারা বলেন,এই শহরে প্রায় ৫ শতাধিক ব্যাটারী চালিত রিক্সা মালিক শ্রমিকদের সাথে তাদের পরিবারের ৪/৫ হাজার সদস্যদের জীবন জীবিকা নির্ভর করছে। তাদের পেঠে লাথি মারার জন্য এমন উদ্যোগ তারা মেনে নিতে পারছেন না। এই রিক্সা বন্ধ করা হলে ৫ শতাধিক মালিক ও শ্রমিকরা বেকার হয়ে তাদের পরিবারের ৪/৫ হাজার লোকজন না খেয়ে অনাহারে অর্ধহারে মরতে হবে। তারা ব্যাংক থেকে কিস্তির মাধ্যমে টাকা এনে এই ব্যাটারী চালিত রিক্সা ক্রয় করেন এবং কিস্তির সম্পূর্ণ টাকা এখনো পরিশোধ করতে পারেনি। এই ব্যাটারী চালিত রিক্সা বন্ধ না করে পৌরসভার মাধ্যমে একটি নীতিমালা প্রনয়ন করে লাইসেন্সের মাধ্যমে প্রতিটি রিক্সা চালু রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা,জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও পৌরসভার মেয়র নাদের বখতের প্রতি জোর দাবী জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন