1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. satvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:২৬ অপরাহ্ন
  •                          

হাওরাঞ্চলের কথা ইপেপার

ব্রেকিং নিউজ
বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে জেলা পুলিশের পান্তা উৎসব পালিত সুনামগঞ্জে একুশে টেলিভিশনের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে চুরি হয়ে যাওয়া পাসপোর্ট ও মোবাইল উদ্ধার করে দিলেন এপিবিএন টিম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে মিথ্যা অপপ্রচার দোয়ারাবাজারে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মানহানির অভিযোগে মামলা দায়ের গোলাপগঞ্জের বিশিষ্ট সমাজসেবক ফরিজ আলীকে জড়িয়ে প্রকাশিত মিথ্যা সংবাদের নিন্দা ও প্রতিবাদ সুনামগঞ্জে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মধ্যে কোরআন শরিফ বিতরণ বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি নির্বাচনে সিলেটের বিজয়ী হয়েছেন দুইজন  দিরাইয়ে দোকান থেকে ৬০ বস্তা সরকারি চাল উদ্ধার সিলেট মহানগরীর আলমপুর থেকে ১০ জুয়াড়ীকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে এসএমপি ডিবি পুলিশ সাংবাদিক পারভেজের মায়ের সু—চিকিৎসার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে —এমপি নাদেল

ভাষার দিনে ভাষাসৈনিক বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা দিলো-বিজয় বাংলা

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৭২ বার পড়া হয়েছে

হাওরাঞ্চলের কথা :: একুশে ফেব্রুয়ারি। ভাষার দিন। এইদিনে সিলেটে ভাষাসংগ্রামী ও মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা প্রদান করেছে বিজয় বাংলা নামের একটি সংগঠন। মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট মুরারীচাঁদ (এমসি) কলেজের ছাত্রাবাস চত্বরে এই সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে একজন ভাষাসৈনিক ও ২১ জন মুক্কিযোদ্ধাকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

সাবেক ছাত্রনেতা মিঠু তালুকদারের সভাপতিত্বে সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদপ্রার্থী আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী।

মুক্তিযোদ্ধা সন্তান মনোজ কাপালি মিন্টু ও সাবেক ছাত্রনেতা কামরুল ইসলামের সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল, মহানগর আয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বিজিত চৌধুরী ও মহাম্মদ ছানাওর।

সম্মাননা গ্রহণের প্রতিক্রিয়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা রোকেয়া বেগম বলেন, আজকে এই আয়োজনে এসে আমার একাত্তরের যুদ্ধদিনের কথা মনে পড়ছে। তখন আমিও এই কলেজের ছাত্রী ছিলাম।

তিনি বলেন, আমরা যুদ্ধ করে একটি দেশ এনেছি। এই দেশকে গড়ে তোলার দায়িত্ব নতুন প্রজন্মের। তাদের এই দায়িত্ব গ্রহণ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে আমরাই একমাত্র জাতি যে জাতি তাদের নিজেদের ভাষাকে প্রতিষ্টার জন্য প্রাণ দিয়েছে। এরপর আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছি। মুক্তিযোদ্ধাদের কারণে আমরা একটি লাল সবুজের দেশ পেয়েছি। তাদের আমরা সব সময় সম্মান প্রদর্শন করতে হবে।

এতে ভাষাসৈনিক অধ্যাপক আব্দুল আজিজকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। তবে তিনি অসুস্থ থাকায় তার মেয়ে সুমন আজিজ সম্মাননা গ্রহণ করেন।

মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্য সম্মাননা গ্রহণ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল, রোকেয়া বেগম, চিত্তরঞ্জন দেব, মাসুক এলাহী, আতিকুর রহমান চৌধুরী, আব্দুর রশিদ, রজনী দাশ, পান্না লাল রায়, মো: ফজলুর রহমান, মো: আকরাম আলী, নিবারন চন্দ্র দাস তালুকদার, মুজিবুর রহমান, মঈন উদ্দিন, জহুর আলী, দীনেশ চক্রবর্তী, মো: কুটি মিয়া, প্রদীপ কুমার সিংহ, মো: শাহাব উদ্দিন, উস্তার আলী, মনোরঞ্জন চন্দ, কার্তিক রায় (মরনোত্তোর) ও গেদু রায় দাস (মরনোত্তোর)।

এতে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক গণ যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক মাইনুল ইসলাম ফায়সল, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রাহেল সিরাজ, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাঈম আহমদ, টুলটিকর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নিরেশ দাশ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত পাঠ করেন দিলাল আহমদ। গীতা পাঠ করেন সোহাগ দাশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন