1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০১:১৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
তাহিরপুরে পাঁচ পূজা মন্ডপে আর্থিক অনুদান দিলেন চেয়ারম্যান আজাদ ধর্মপাশায় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল ধর্মপাশায় সড়ক দূর্ঘটনায় অটো চালকের মৃত্যু সুনামগঞ্জে র‌্যাব-৯ এর কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন- র‌্যাবের মহাপরিচালক জেলা আ’লীগ সভাপতি ও সম্পাদকের বক্তব্য একটি নির্লজ্জ মিথ্যাচার, যা অগঠনতান্ত্রিক-মুকুট কাঠইর-জামালগঞ্জের রাস্তা সংস্কারের দাবীতে মানববন্ধন মধ্যনগরে সামাজিক সম্প্রীতি সমাবেশ ও উদ্ভুদ্ধ করন সভা তাহিরপুরে দুর্গোৎসব উদযাপনে মতবিনিময় সভা সুনামগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষার্থীদের টেকসই উন্নয়নে বিনামুল্যে বাইসাইকেল বিতরণ করেছে বিএমইটি তাহিরপুরে খাদ্য বান্ধব কর্মসুচির ১৫ টাকা কেজি ধরে চাল বিক্রির কার্যক্রম শুরু

ব্যবসায়ী রিয়াজের ডিজিটাল সিকিউরিটি মামলায় তাহিরপুরের আব্দুল্লাহ আল মাসুদ জেল হাজতে

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে শুক্রবার, ৫ আগস্ট, ২০২২
  • ১০৫৮ বার পড়া হয়েছে

সিলেট প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর কয়লা আমদানীকারক ব্যবসায়ী সমিতির সদস্য ও বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে ফেইসবুক ও অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টালে মানহানিকর ও ভিত্তিহীন তথ্য লিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কুৎসা রটানো ও প্রচারের অভিযোগে আব্দুল্লাহ আল মাসুদকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে বিজ্ঞ ট্রাইব্যুনালের বিচারক। বৃহস্পতিবার সকালে সিলেট সাইবার ট্রাইব্যুনালে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

মামলা সুত্রে জানা যায়, ২০২১ সালের ৪ঠা জানুয়ারী ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে মিথ্যা, কাল্পনিক তথ্য উপস্থাপন করে মানহানিকর শব্দ ব্যবহার করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে প্রচার ও প্রকাশ করেন আব্দুল্লাহ আল মাসুদ। এ ঘটনায় রিয়াজ উদ্দিন বাদী হয়ে আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, সুনামগঞ্জ শহরের একজন সাংবাদিক ও তাহিরপুর উপজেলার কামরাবন্দ গ্রামের মৃত আব্দুল মনাফের পুত্র আজিজুল হক কে বিবাদী করে সিলেট সাইবার ট্রাব্যুনাল আদালতে গত ২৫ মে ২০২১ তারিখে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ০৫/২০২১। মামলাটি বিজ্ঞ বিচারক আমলে নিয়ে সিলেট সিআইডিকে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশনা দিলে তদন্তকারী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মাসুদের মোবাইল জব্দ করেন এবং ফরেনসিক রিপোর্টের আবেদন করলে সিআইডি’র ফরেনসিক রিপোর্টে কুৎসা রটানো ও প্রচারের সত্যতা প্রকাশ পায় এবং তদন্তকারী কর্মকর্তা তা আদালতে প্রতিবেদন প্রেরণ করেন। আব্দুল্লাহ আল মাসুদ তাহিরপুর উপজেলার মাটিকাটা গ্রামের পল্লী চিকিৎসক মৃত ইউনুস আলীর পুত্র। ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিনের দায়েরকৃত ডিজিটাল সিকিউরিটি নিরাপত্তা আইনের মামলা নং ০৫/২০২১ এর হাজির হয়ে বৃহস্পতিবার সকালে ট্রাইব্যুনালে জামিন প্রার্থনা করলে ট্রাইব্যুনালের বিজ্ঞ বিচারক জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে আব্দুল্লাহ আল মাসুদকে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন।

মামলা ও স্থানীয় সুত্রে আরও জানা যায়, ২০২০ সালে আব্দুল্লাহ আল মাসুদের দায়েরকৃত একটি ওয়ারেন্ট জালিয়াতির মামলায় ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিনকে জেল কাটিয়েছেন। পরবর্তীতে রিয়াজ উদ্দিন উক্ত মামলার চার্জশীটের বিরুদ্ধে নারাজি দায়ের করলে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা পূণ: তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিল করেন আদালতে। উক্ত জালিয়াতির সাথে ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিনের সম্পৃক্ততা না থাকায় তাকে মামলা থেকে অব্যহতি প্রদান করেন সুনামগঞ্জ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত। যার মামলা নং ৮৮/২০২০। এর আগে রিয়াজ উদ্দিন ও আব্দুল্লাহ আল মাসুদ যৌথভাবে বাদাঘাট বাজারের অদুরে কামরাবন্দ গ্রামে পার্টনারশীটে তিন তলা বিশিষ্ট একটি বাসা বাড়ী তৈরী করেছেন বলেও জানা যায়।

মামলার বাদী ও ব্যবসায়ী রিয়াজ উদ্দিন জানান, আব্দুল্লাহ আল মাসুদ আমার অনেক ক্ষতি করেছে। আমাকে বিনা দোষে জেল কাটিয়েছে এবং হয়রানী করিয়েছে। আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে হলুদ সাংবাদিকদের দিয়ে মিথ্যা খবর প্রকাশ করিয়েছে এবং নিজে ফেইসবুকে শেয়ার দিয়ে আমার মান সম্মান হানি ঘটিয়েছে। আব্দুল্লাহ আল মাসুদ ও আমি দুজনে মিলে কামরাবন্দ গ্রামে তিন তলা বিশিষ্ট একটি বাসা বাড়ী তৈরী করেছি। আমার বিরুদ্ধে ভুয়া জালিয়াতির মামলা দিয়ে আমার বাসার অংশ আত্মসাৎ করার পায়তারা করেছিল। মিথ্যা মামলা দায়ের করায় এই মামলা থেকে মাননীয় আদালত আমাকে অব্যহতি দিয়েছে। আমি ন্যায় বিচার পেয়েছি। সিলেট সাইবার ট্রাইব্যুনালের বাদী পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন এড. মাসুদ আহমেদ।

সিলেট সাইবার ট্রাব্যুনালের পিপি এডভোকেট দিলোয়ার হোসেনের বিরোধীতার কারণে আসামী আব্দুল্লাহ আল মাসুদকে বিজ্ঞ বিচারক জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরনের  নির্দেশ দিয়েছেন বলে বিজ্ঞ পিপি নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন