1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:২৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ধর্মপাশায় ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ সুরমা নদীতে সেতু নির্মানসহ বিভিন্ন দাবীতে মানববন্ধন ও লিফলেট বিতরণ চাকুরী করেন বাংলাদেশে ৫ বছর ধরে বসবাস করেন আমেরিকায় প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন সুলতানা উন্নয়নের স্বার্থে সবাইকে মিলেমিশে থাকতে হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী  শান্তিগঞ্জে পোনামাছ অবমুক্ত করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় পরিকল্পনামন্ত্রী, জনগণই আমাদের সব  রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দদের সাথে অপরাজিতার মতবিনিময় তাহিরপুরে শহীদ সিরাজ লেকে পানিতে ডুবে পর্যটক নিহত  সুনামগঞ্জ সাংবাদিক ফোরামের গঠতনন্ত্র অনুমোদিত তাহিরপুরে দ্রুততম সময়ের মধ্যে দৃষ্টিনন্দন পর্যটন কেন্দ্র নির্মান করা হবে- সচিব মোকাম্মেল

বিশ্বম্ভরপুরে যাদুকাটা নদীতে নিখুজ ২ দিন পর দুই ভাইয়ের লাশ উদ্ধার, এলাকায় শোকের মাতম

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে শুক্রবার, ২ জুলাই, ২০২১
  • ১৪০ বার পড়া হয়েছে

স্টাফ রিপোর্টারঃ

সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদীতে পাহাড়ী ঢলের পানিতে ডুবে নিখুজ আপন দুই ভাইয়ের লাশ দুইদিন পর পার্শ্ববর্তী উপজেলার তাহিরপুর থেকে ভাসমান অবস্থায়
উদ্ধার করেছে গ্রামবাসী ও পরিবারের লোকজন।
বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টার দিকে তাহিরপুর উপজেলার বালিজুরী ইউনিয়নের দক্ষিণকুল গ্রামের সামনে যাদুকাটা নদীতে ভাসমান অবস্থায় দুই ভাইয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়।

গত মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার দক্ষিণ বাদাঘাট ইউনিয়নের মিয়ারচড় বাজার সংলগ্ন যাদুকাটা নদীতে ঢলের পানিতে ডুবে মেরাজুল ইসলাম(১০) ও তার ছোট ভাই খাইরুল ইসলাম(৭) নিখুজ হয়। তারা দক্ষিণ বাদাঘাট ইউনিয়নের মিয়ারচড় গ্রামের মোস্তু মিয়ার ছেলে ।

নিহতদের চাচাতো ভাই লুৎফুর রহমান নাঈম জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে বালিজুড়ি ইউনিয়নের দক্ষিণকুল গ্রামের সামনে এক শিশুর লাশ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পেয়ে আমাদের ফোনে জানান। পরে পরিবারের লোকজন গিয়ে বড় ছেলের লাশ শনাক্ত করে মিয়ারচড় খেয়াঘাটে নিয়ে আসেন । কিচ্ছুক্ষণ পর আবারও সংবাদ আসে একই স্থানে  আরো একটি শিশুর লাশ ভেসে উঠেছে। পরে পরিবারের লোকজন গিয়ে ছোট ছেলের লাশ শনাক্ত করে মিয়ারচড় খেয়াঘাটে নিয়ে আসেন।
দুই সহোদরের লাশ উদ্ধারের পর পরিবার সহ এলাকায় শোকের মাতম দেখা দিয়েছে । দুই ছেলের লাশ এক সাথে দেখে শিশুদয়ের পিতা মাতা কান্নায় ভেঙ্গে পড়ছে এবং বাবার জ্ঞান হারাচ্ছে।

প্রসঙ্গত,গত মঙ্গলবার বিকালে নিজ বাড়ি থেকে দুই সহোদর মিয়ারচড় বাজারের সংলগ্ন যাদুকাটা নদীতে পাহাড়ি ঢলের নতুন পানি দেখতে যায়। এসময় পানি দেখতে নদীর পাড়ে রাখা ষ্টিলের নৌকার উপর উঠে ছোট ভাই খাইরুল। বিষয়টি দেখতে পেয়ে বড় ভাই মেরাজুল বাজারে গিয়ে পিতা মোস্তু মিয়াকে জানালে খাইরুলকে নিয়ে আসার জন্য বড় ভাই মেরাজুলকে পাঠায়। পরে মেরাজুল তার ছোট ভাই খাইরুলকে আনতে গিয়ে আর ফিরে আসেনি।

নিহতদ্বয়ের পিতা মোস্তু মিয়া বলেন, নদীতে নতুন গোলার পানি এসে ভরে গেছে। বাজারের দোকানে ব্যবস্থ্য থাকায় বড় ছেলেকে পাঠিয়েছিলাম ছোট ছেলেকে নদীর পাড় থেকে নিয়ে আসতে। কিন্তু তাদের ফিরে আসতে দেরি দেখে কিছুক্ষন পর নিজেই নদীর পাড়ে যাই। গিয়ে আর তাদের পাইনা।
পরে বিষয়টি বিশ্বম্ভরপুর থানায় জানালে পরদিন বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে এসে থানা পুলিশের সহযোগিতায় ডুবুরিদল যাদুকাটা নদীর মিয়ারচড়ে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে দুই সহোদরের সন্ধান করতে পারেনি পুলিশ ও ডুবুরিদল।

বিশ্বম্ভরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো.ইকবাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শিশু দুই ভাইয়ের লাশ যাদুকাটা নদী থেকে ভাসামান অবস্থায় উদ্ধার করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী ও তাদের পরিবারের লোকজনের । খবর পেয়ে ঘটনার স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তাদের কোন অভিযোগ না থাকলে দুই সহোদরের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। ময়নাতদন্ত করা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঊধ্বর্তন কর্মকর্তাগনের সঙ্গে আলাপ করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন