1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:২৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
সিলেটে বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদের জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জের শামীমসহ ‘দুই জঙ্গি’ ছিনতাই : বিভিন্ন স্থানে পুলিশের ব্লক রেইড আর্তমানবতার সেবায় রেড ক্রিসেন্ট অসাধারণ ভূমিকা রাখছে-নাসির উদ্দিন খান লায়ন্স ক্লাব এর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ উন্নয়নের ক্ষেত্রে ভাটি এলাকা আর পিছিয়ে থাকবে না-পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান সিলেট মোটরসাইকেল পার্টস মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের বার্ষিক সাধারণ সভা খালেদার বাসায় প্রবেশের সড়কে পুলিশের চেকপোস্ট বিজয়ের মাসে বাংলাদেশ বৌদ্ধ যুব পরিষদ’র উদ্যোগে সিলেটে শীতবস্ত্র দান সিলেট শহরতলীর দক্ষিণ সুরমায় অবৈধ শিলংতীর জুয়া ও মাদকের জমজমাট আসর কোম্পানীগঞ্জে রাতের আধাঁরে দুর্বৃত্তের আগুনে পুড়ল অটোরিকশা

বিএনপির সমাবেশের আগে আসছে পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে সোমবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২২
  • ১৭ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক :: বিএনপির সমাবেশের আগের দিন থেকেই পরিবহন ধর্মঘট- এমনটিই ঘটেছে দেশের ছয় বিভাগে। সিলেটেও কী এর পুণরাবৃত্তি ঘটবে? এখানেও কী বিএনপির সমাবেশের আগেই ধর্মঘটে যাবেন পরিবহন শ্রমিকরা? ১৯ নভেম্বর সিলেটে বিভাগীয় গণসমাবেশ করবে বিএনপি।

সিলেটের পরিবহন শ্রমিক নেতারা বলছেন, ধর্মঘট ডাকার কোন পরিকল্পনা তাদের নেই। তবে কেন্দ্রীয় নেতারা নির্দেশনা দিলে সিলেটেও ধর্মঘট হবে বলে জানিয়েছেন তারা।

বিএনপি নেতাদের আশা, সিলেটের সম্প্রীতি ও সহাবস্থানের কথা বিবেচনা করে ধর্মঘট থেকে বিরত থাকবেন পরিবহন মালিক শ্রমিকরা। তবে ধর্মঘট হলেও সমাবেশ সফল করতে বিকল্প ব্যবস্থা নেওয়া আছে বলে জানিয়েছেন তারা।

তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে পরিবহন শ্রমিকদের এক নেতা জানিয়েছেন, সোমবার সিলেটের কয়েকজন পরিবহন শ্রমিক নেতার সাথে বৈঠক করেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাহজাহান খান। শ্রমিক নেতা শাহজাহান খান আওয়ামী লীগেরও সভাপতি মন্ডলীর সদস্য। এই বৈঠকে ১৭, ১৮ ও ১৯ নভেম্বর পরিবহন ধর্মঘট ডাকার ব্যাপারে নির্দেশনা দেয়া হয়।

ওই বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, ১৭ নভেম্বর এইচএসসি পরীক্ষা থাকায় ওইদিন ধর্মঘট নাও ডাকা হতে পারে। এতে কেবল ১৮ ও ১৯ নভেম্বর পরিবহন ধর্মঘট ডাকা হবে। দুএকদিনের মধ্যেই এই ঘোষণা আসবে বলে জানিয়েছেন ওই বৈঠকে অংশ নেওয়া এক পরিবহন শ্রমিক নেতা।

নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতির প্রতিবাদসহ বিভিন্ন ইস্যুতে দেশের সব বিভাগে গণসমাবেশ করছে বিএনপি। ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, খুলনা, রংপুর, বরিশাল ও ফরিদুপরে সমাবেশ সম্পন্ন হয়েছে। সব বিভাগেই সমাবেশের আগের দিন থেকে শুরু হয় পরিবহন ধর্মঘট। এতে সমাবেশে আসা নেতাকর্মীদের পাশপাশি দুর্ভোগ পোহাতে হয় সাধারণ মানুষদেরও। সমাবেশের আগে ডাকা পরিবহন ধর্মঘট নিয়ে সমালোচনা সত্ত্বেও সব বিভাগেই ঘটছে এমন ঘটনা।

সিলেটে বিএনপির সমাবেশের আগে ধর্মঘট ডাকা হবে কি না এমন প্রশ্নে সিলেট জেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মইনুল ইসলাম বলেন, ধর্মঘট ডাকার কোন চিন্তা বা লক্ষ্য আমাদের নেই। আমরা শ্রমিকরা সর্বদলীয়। সবার সাথেই আমরা আছি।

সোমবার দুপুরে তিনি বলেন, এখন আমরা ঢাকায় বৈক করছি। এ ব্যাপারে পরে সিদ্বধান্ত জানানো হবে।

ধর্মঘটের ব্যাপারে এখন পর্যন্ত কোন সিদ্ধান্ত হয়নি জানিয়ে বাস মালিক সমিতি সিলেট জেলা শাখার সভাপতি আবুল কালাম বলেন, সবকিছু বিবেচনা করেই আমাদের চলতে হয়। সরকারের কথাও শুনতে হয়। তাছাড়া যানবাহন ও যাত্রীদের নিরাপত্তার কথাও আমাদের ভাবতে হয়নি।

‘সবকিছু বলাও ঠিক নয়’ উল্লেখ করে এই পরিবহন মালিক নেতা বলেন, পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের কেন্দ্রীয় নেতারা বসে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন। আজ সোমবার ঢাকায় এনিয়ে একটি বৈঠক হয়েছে। শীঘ্রই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

তবে পরিবহন শ্রমিকরা ধর্মঘট ডাকলেও বিএনপির সমাবেশে তার কোন প্রভাব পরবে না জানিয়ে সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেন, ধর্মঘটে কোথাও সমাবেশের ক্ষতি হয়নি। সাধারণ মানুষেরই ভোগান্তি হয়েছে কেবল। তাই আমরা আশা করবো জনদুর্ভোগ এড়াতে এবং সিলেটের রাজনৈতিক ও সামাজিক সম্প্রীতির কথা বিবেচনায় রেখে এখানে পরিবহন ধর্মঘট ডাকা হবে না।

তবে ধর্মঘট ডাকলেও সমাবেশে লোকসমাগম ঘটাতে বিকল্প ব্যবস্থা রাখা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা বিকল্প সব ধরণের ব্যবস্থা নিয়ে রেখেছি। কোন গাড়ি না চললেও ১৯তারিখে সিলেটে জনতার ঢল নামবে। কেবল আলীয়া মাদ্রাসা মাঠ নয়, পুরো সিলেট সেদিন সমাবেশের নগর হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন