1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:১৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ধর্মপাশায় ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ সুরমা নদীতে সেতু নির্মানসহ বিভিন্ন দাবীতে মানববন্ধন ও লিফলেট বিতরণ চাকুরী করেন বাংলাদেশে ৫ বছর ধরে বসবাস করেন আমেরিকায় প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন সুলতানা উন্নয়নের স্বার্থে সবাইকে মিলেমিশে থাকতে হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী  শান্তিগঞ্জে পোনামাছ অবমুক্ত করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় পরিকল্পনামন্ত্রী, জনগণই আমাদের সব  রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দদের সাথে অপরাজিতার মতবিনিময় তাহিরপুরে শহীদ সিরাজ লেকে পানিতে ডুবে পর্যটক নিহত  সুনামগঞ্জ সাংবাদিক ফোরামের গঠতনন্ত্র অনুমোদিত তাহিরপুরে দ্রুততম সময়ের মধ্যে দৃষ্টিনন্দন পর্যটন কেন্দ্র নির্মান করা হবে- সচিব মোকাম্মেল

দক্ষিন সুনামগঞ্জে মুজিববর্ষে আশ্রয়ন প্রকল্পের ঘর নির্মানে ব্যাপক অনিয়ম, ভেঙ্গে পড়েছে ১০/১২ টি

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে শনিবার, ১০ জুলাই, ২০২১
  • ১৯৮ বার পড়া হয়েছে

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ

সুনামগঞ্জে পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নানের নিবার্চনী এলাকায় বসবাসের আগেই ভেঙ্গে পড়ছে মুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার আশ্রায়ণ প্রকল্পের ঘর। উপজেলার পূর্বপাগলা ইউনিয়নের পিঠাপসী ও ঘোড়াডুম্বুর গ্রামে ১৫১ টি ঘর উপহার দেওয়া হয়। এর মধ্যে ১০/১২টি ঘরে ফাটল দেখা দিয়েছে। এ ছাড়া টানা বৃষ্টিতে ঘরের পাশের মাটি ধসে গেছে।

এলাকাবাসী সুত্র জানায়, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন প্রতি ঘর থেকে ২০ হাজার টাকা করে  অসহায় ভুমিহীন দরিদ্রদের কাছ থেকে নিয়ে ঘর দিয়েছেন । নিম্নমানের নির্মানসামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে। ৫০ থেকে ৬০ বস্তা সিমেন্ট ব্যবহারের কথা থাকলেও ২৫/ ৩০ বস্তা দিয়ে কাজ শেষ করা হয়েছে। ঘরে পাঁচটি জানালা দেওয়ার কথা থাকলেও কোথাও তিনটি কোথাও চারটি দেওয়া হয়েছে। তিন ইঞ্চি কাঠ ব্যবহারের কথা থাকলেও দেড় ইঞ্চি কাঠ ব্যবহার করা হয়েছে।

এ ছাড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের বরাদ্দ থেকে মাটি ভরাটের ১২ লাখ টাকা নেওয়া হলেও মাটি ভরাট করা হয়নি।

এ ব্যাপারে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি নূর মিয়া বলেন, এই আশ্রায়ন প্রকল্পে ব্যাপক অনিয়ম দুর্নীতি করা হয়েছে। প্রতিটি ঘর থেকে ১৫/২০ হাজার টাকা করে নেওয়া হয়েছে। অামি ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ডিসি স্যারকে অনুরোধ করেছি, আপনি এসে দেখে যান কীভাবে দুর্নীতি করা হয়েছে।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন ভুইয়া বলেন, এ রকম ঘটনা আমার জানা নাই।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নূর হোসেন বলেন, এ সব ঘরে বরাদ্দ খুব কম। নিচু জায়গা হওয়ায় ঘর ধেবে যেতে পারে। তবে, তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। কেউ অনিয়ম করলে শাস্তি হবে।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার উজ জামান বলেন, আমি মাসখানেক আগে যোগদান করেছি। এই প্রকল্পে অনিয়মের বিষয়টি মাথায় রেখে ইতোমধ্যে পাঁচটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। সোমবারের মধ্যে তারা রিপোর্ট দিবেন। আমি নিজেও পরিদর্শন করবো। অনিয়ম হলে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন