1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. satvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৫৭ অপরাহ্ন
  •                          

হাওরাঞ্চলের কথা ইপেপার

ব্রেকিং নিউজ
বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে জেলা পুলিশের পান্তা উৎসব পালিত সুনামগঞ্জে একুশে টেলিভিশনের ২৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে চুরি হয়ে যাওয়া পাসপোর্ট ও মোবাইল উদ্ধার করে দিলেন এপিবিএন টিম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে মিথ্যা অপপ্রচার দোয়ারাবাজারে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের মানহানির অভিযোগে মামলা দায়ের গোলাপগঞ্জের বিশিষ্ট সমাজসেবক ফরিজ আলীকে জড়িয়ে প্রকাশিত মিথ্যা সংবাদের নিন্দা ও প্রতিবাদ সুনামগঞ্জে মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের মধ্যে কোরআন শরিফ বিতরণ বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি নির্বাচনে সিলেটের বিজয়ী হয়েছেন দুইজন  দিরাইয়ে দোকান থেকে ৬০ বস্তা সরকারি চাল উদ্ধার সিলেট মহানগরীর আলমপুর থেকে ১০ জুয়াড়ীকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে এসএমপি ডিবি পুলিশ সাংবাদিক পারভেজের মায়ের সু—চিকিৎসার জন্য মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে —এমপি নাদেল

তাড়ল ইউপি সচিবকে নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে শনিবার, ২৭ মে, ২০২৩
  • ১২৩ বার পড়া হয়েছে

বিগত ২১ মে ২০২৩ ইং তারিখের স্থানীয় দৈনিক‘‘ সুনামগঞ্জ প্রতিদিন’’ পত্রিকার শেষ পৃষ্ঠায় ” তাড়ল ইউপি সচিব টিটু রঞ্জন দাসের বিরুদ্ধে প্রথম স্ত্রী’র অভিযোগ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। উক্ত সংবাদে উল্লেখ করা হয়েছে অফিসের কাজের মহিলাকে বিবাহ করা হয়েছে। যা সম্পূর্ন মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। ইউপি সচিব টিটু রঞ্জন দাসের পেশাগত ইমেজকে সংকটে ফেলার জন্য সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার হীন উদ্দেশ্যে মানহানিকর ও অসত্য মিথ্যা বানোয়াট অভিযোগ উত্তাপনের মাধ্যমে অপসংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। এমন অভিযোগের সাথে আমার কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। প্রকৃতপক্ষে আমার ব্যক্তিগত আক্রোশের কারনেই মিথ্যা অভিযোগ উপস্থাপনের মাধ্যমে আমাকে সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার ব্যর্থ চেষ্টা করা হয়েছে। সংবাদে আরো উল্লেখ করা হয়েছে যে, আমার প্রথম স্ত্রীর তার বাবার বাড়ি থেকে ৬ লাখ টাকা এনে দিয়েছে, যার কোন সত্যতা নেই। এ ধরনের কালপনিক মিথ্যা অভিযোগের স্বপক্ষে কোন সাক্ষ্য-প্রমাণ নাই। আমার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট। শুধুমাত্র পারিবারিক ও সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এই এ ধরনের মানহানিকর সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। আমার প্রথম স্ত্রী কে ব্যবহার একটি কুচক্রি মহল আমাকে ব্ল্যাক মেইলিং করার চেষ্টা করছেন। তাদের অনৈতিক চাহিদা পুরণ না করায় কাল্পনিক তথ্য উপস্থাপনের মাধ্যমে মানহানি ঘটাচ্ছেন। আমি এ ধরনের অপসাংবাদিকতার বিরুদ্ধে দেশের প্রচলিত আইনানুয়ায়ী প্রতিকারের ব্যবস্থা নেয়া হবে। সংবাদে উল্লেখ করা হয়েছে ব্যাংক থেকে ৮ লক্ষ টাকা লোন তুলে দিয়েছেন আমার প্রথম স্ত্রী। যা সম্পুর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট। সংবাদে আরো উল্লেখ করা হয়েছে আমার প্রথম স্ত্রী শিক্ষকতা জীবনের অর্জনকৃত সম্পুর্ন টাকা আমার হাতে তুলে দিয়েছেন। যা সম্পুর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট। আমার স্ত্রী মনি রানী তালুকদার তার চাকুরী জীবনের সমস্ত টাকা নিজে উত্তোলন করেছেন এবং তার নিজ হাত দিয়েই খরচ করেছেন। সংবাদে আরও উল্লেখ করা হয়েছে যে, পৌর শহরের ষোলঘর এলাকায় ২.৬১ জায়গায় দুজন মিলে জায়গা খরিদ করেন এবং খরিদকৃত জায়গায় স্বামী-স্ত্রী দুজন মিলে বাসা করেছেন, যা সম্পূর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট। আমার সারা জীবনের সঞ্চিত টাকা এবং উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত টাকা দিয়ে আমার নিজ নামে জায়গা ক্রয় করে নিজের টাকা দিয়ে বাসা তৈরী করেছি। আমার স্ত্রীর চাকুরির কোন টাকা আমাকে দেয়নি কিংবা বাসার কাজে ব্যবহার করা হয়নি। তার টাকা তার কাছেই গচ্ছিত আছে। আমি তার যাবতীয় ব্যয়ভার ও ভরনপোষন করে যাচ্ছি। স্বামী স্ত্রীর মনোমালিন্যের বিষয় নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি । টিটু রঞ্জন দাস, সুনামগঞ্জ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন