1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. satvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৫:০৯ অপরাহ্ন
  •                          

হাওরাঞ্চলের কথা ইপেপার

ব্রেকিং নিউজ
সুনামগঞ্জের বন্যা কবলিত ৫০০ পরিবারের মাঝে পূবালী ব্যাংকের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ বিশ্বম্ভরপুর থানা পুলিশের সহায়তায় নিখুঁজ আনসার সদস্য আনোয়ারকে সিলেট থেকে উদ্ধার করল পুলিশ তাহেরপুরের টাঙ্গুয়ার হাওরে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ ছাই ধ্বংস ও জরিমানা সুনামগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে মাদক ও চোরাচালান বন্ধে সংকল্প ব্যক্ত করেছেন নবনিযুক্ত পুলিশ সুপার এমএন মুর্শেদ এমপি রনজিত সরকারের হস্তক্ষেপে তাহিরপুরে নৌ পথে চাঁদাবাজী বন্ধ : স্বস্তিতে নৌ শ্রমিকসহ ব্যবসায়ীরা নবনিযুক্ত সিলেট পুলিশ সুপারের সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময় তাহেরপুরে বন্যা ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার বিতরণ করলেন এমপি রঞ্জিত বিকাশ প্রতারণার ফাঁদে পড়ে ৩১ হাজার টাকা হারালেন সুনামগঞ্জের দরিদ্র কৃষক ছিদ্দেক আলী বিপুল পরিমাণ ভারতীয় নাসির বিড়িসহ এক কারবারিকে আটক করেছে কানাইঘাট থানা পুলিশ বৃহত্তর হরিপুর ট্রাক পিকআপ চালক সমিতির দ্বি—বার্ষিক নির্বাচনে সভাপতি সায়েদ সম্পাদক কামাল

ঢাকায় তৈরি নকল সয়াবিন তেল বিক্রি হয় সিলেটে

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে সোমবার, ৩ এপ্রিল, ২০২৩
  • ১০৯ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক :: রাজধানীর ডেমরা থানার স্টাফ কোয়ার্টার এলাকায় একটি ভোজ্যতেলের কারখানায় অভিযান চালিয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

রোববার (২ এপ্রিল) দুপুরে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সয়াবিন তেল বোতলজাত করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রির সত্যতা পান প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা। এ সময় কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি কারখানা সংশ্লিষ্টরা। ফলে কারখানাটি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা জেলা কার্যালয়ের অফিস প্রধান এবং সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল জব্বার মণ্ডল বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালানো হয়। সেখান থেকে চার ধরনের ব্র্যান্ডের নামে সয়াবিন ও পাম ওয়েল তেল বাজারজাত করা হয় হতো। কোনোটিতেই বিএসটিআইয়ের লাইসেন্স নেই। তরু ও চেরী নামে পাম ওয়েল এবং দৃষ্টি ও ত্বীন নামে সয়াবিন তেল বোতলজাত করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বাজারজাত করা হতো। যেসব মান ও দিকনির্দেশনা মেনে একটি তেলের কারখানা করার কথা তার কিছুই পাওয়া যায়নি।’

মো. আব্দুল জব্বার মণ্ডল আরও বলেন, ‘কারখানাটি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া মালিককে কাগজপত্র নিয়ে আমাদের অফিসে হাজির হতে বলা হয়েছে। না হলে আমরা স্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেব।’

এ সময় কারখানার কর্মচারীরা জানান, রাতের বেলা তারা এখানে তেল বোতলজাত করার কাজ করেন। কারখানা বৈধ না অবৈধ এ সম্পর্কে তাদের কোনো ধারণা নেই। সিলেট, শ্রীমঙ্গলসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় এই তেল বাজারজাত করা হয় বলে জানান তারা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন