1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৪৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য হলেন শাল্লার টিটু দাস সিলেটে বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদের জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত সুনামগঞ্জের শামীমসহ ‘দুই জঙ্গি’ ছিনতাই : বিভিন্ন স্থানে পুলিশের ব্লক রেইড আর্তমানবতার সেবায় রেড ক্রিসেন্ট অসাধারণ ভূমিকা রাখছে-নাসির উদ্দিন খান লায়ন্স ক্লাব এর খাদ্য সামগ্রী বিতরণ উন্নয়নের ক্ষেত্রে ভাটি এলাকা আর পিছিয়ে থাকবে না-পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান সিলেট মোটরসাইকেল পার্টস মার্চেন্ট এসোসিয়েশনের বার্ষিক সাধারণ সভা খালেদার বাসায় প্রবেশের সড়কে পুলিশের চেকপোস্ট বিজয়ের মাসে বাংলাদেশ বৌদ্ধ যুব পরিষদ’র উদ্যোগে সিলেটে শীতবস্ত্র দান সিলেট শহরতলীর দক্ষিণ সুরমায় অবৈধ শিলংতীর জুয়া ও মাদকের জমজমাট আসর

জেলা আ’লীগ সভাপতি ও সম্পাদকের বক্তব্য একটি নির্লজ্জ মিথ্যাচার, যা অগঠনতান্ত্রিক-মুকুট

মিজানুর রহমান:
  • আপডেট করা হয়েছে মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১৪৭ বার পড়া হয়েছে

সুনামগঞ্জ জেলা আ’লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নুরুল হুদা মুকুট বলেছেন, জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দলীয় শৃঙ্খলা অমান্য করায় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী আমাকে জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি পদসহ দলীয় পদবী থেকে নাকি জেলা আ’লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক অব্যাহতি প্রদান করেছেন।
সেই সাথে জেলা আ’লীগের কার্যনির্বাহী কমিটি জরুরী সভা আহব্বান করে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমাকে নাকি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদের মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের অনুরোধ জানানো হয়েছিল। তবে প্রকৃতপক্ষে ওই জরুরী সভায় এ বিষয়ে কোন আলোচনা হয় নি এবং কেউ আমাকে মনোনয়ন প্রত্যাহারের জন্য অনুরোধ ও করে নি। জেলা আ’লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের এ ধরনের বক্তব্য একটি নির্লজ্জ মিথ্যাচার যা অগঠনতান্ত্রিক, অগনতান্ত্রিক, ও এখতিয়ার বহির্ভূত। আমি এসব বে-আইনি কার্যক্রমের তীব্র নিন্দা জানাই।
আজ মঙ্গলবার সুনামগঞ্জ জেলা পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো জানান, গঠনতন্ত্রের ৪৬ ধারায় বর্ণিত আছে শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে অভিযুক্ত ব্যাক্তিকে কারন দর্শানোর জন্য সুযোগ দানে সাধারন সম্পাদক নোটিশ দিতে বাধ্য থাকবেন। কিন্তু আমাকে এখনো কারন দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয় নি। নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোটরদের বিভ্রান্ত করতেই তারা এ সকল কার্যকলাপ করছেন। তিনি আরো বলেন, আমি কোনদিন ও দলীয় প্রতিকের বিরুদ্ধে নির্বাচন করি নি। যদি আমার প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী দলীয় প্রতিক নৌকা পেতেন তাহলে আমি অবশ্যাই নির্বাচন বর্জন করতাম। স্থানীয় ও জাতীয় নির্বাচনে জেলা আ’লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক প্রকাশ্যে নৌকার বিরোধীতা করেছেন বলে তিনি অভিযোগ করেন।

নুরুল হুদা মুকুট আরো বলেন, আ’লীগের অসময়ে সুনামগঞ্জের রাজপথে থেকে লড়াই করেছি। তখন কোন অতিথি পাখিকে সুনামগঞ্জের রাজপথে দেখা যায় নি। এখন আ’লীগের সু-সময়ে তারা উড়ে এসে জুড়ে বসেছেন। তিনি আরো বলেন, সুনামগঞ্জের রাজপথে বিএনপি এখন বড় বড় মিছিল বের করছে। আর জেলা আ’লীগ সভাপতি ও সম্পাদক তারা এ সময় ঘাপটি মেরে বসে থাকেন। এদের দ্বারা শুধু সংগঠন দুর্বল করা সম্ভব। সামনে আমাদের জন্য কঠিন সময় আসছে। তাই জেলা আ’লীগকে আরো শক্তিশালী করতে তিনি নতুন কমিটি গঠনের আহব্বান জানান।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি রেজাউল কবির শামীম, সাংগঠনিক সম্পাদক বাবু শঙ্কর চন্দ্র দাস, আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. আব্দুল করিম, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এড. আজাদুল ইসলাম রতন, বন বিষয়ক সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরী, মানব বিষয়ক সম্পাদক শীতেষ তালুকদার মঞ্জু, তাহিরপুর উপজেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর, দিরাই পৌরসভার সাবেক মেয়র মোশারফ হোসন, সদস্য এড কল্লোল তালুকদার চপল, জেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য সবুজ কান্তি দাস প্রমুখ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন