1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. stvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৩৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
ধর্মপাশায় ছয় বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ সুরমা নদীতে সেতু নির্মানসহ বিভিন্ন দাবীতে মানববন্ধন ও লিফলেট বিতরণ চাকুরী করেন বাংলাদেশে ৫ বছর ধরে বসবাস করেন আমেরিকায় প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন সুলতানা উন্নয়নের স্বার্থে সবাইকে মিলেমিশে থাকতে হবে : পরিকল্পনামন্ত্রী  শান্তিগঞ্জে পোনামাছ অবমুক্ত করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় পরিকল্পনামন্ত্রী, জনগণই আমাদের সব  রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দদের সাথে অপরাজিতার মতবিনিময় তাহিরপুরে শহীদ সিরাজ লেকে পানিতে ডুবে পর্যটক নিহত  সুনামগঞ্জ সাংবাদিক ফোরামের গঠতনন্ত্র অনুমোদিত তাহিরপুরে দ্রুততম সময়ের মধ্যে দৃষ্টিনন্দন পর্যটন কেন্দ্র নির্মান করা হবে- সচিব মোকাম্মেল

চাকুরী করেন বাংলাদেশে ৫ বছর ধরে বসবাস করেন আমেরিকায় প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন সুলতানা

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে শুক্রবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৯৮ বার পড়া হয়েছে

সিলেট প্রতিনিধিঃ
আমেরিকায় বসবাস করেও সরকারী চাকুরীতে নিয়মিত বেতন নিচ্ছেন বাংলাদেশের সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলার রায়গড় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন সুলতানা। এনিয়ে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে আমেরিকায় বসেসরকারী চাকরি করছেন, ব্যাংক থেকে বেতন উত্তোলন করছেন কিভাবে? দেশে কি আইন কানুন নেই, নাকি সবাই অটোপাশ?

এমন অভিযোগ গোলাপগঞ্জ উপজেলার ঢাকাদক্ষিণ ইউনিয়নের দক্ষিণ রায়গড় সরকারী প্রাইমারী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন সুলতানার বিরুদ্ধে। এমন অভিযোগ এনে সম্প্রতি জেলা শিক্ষা অফিসে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি।

অভিযোগপত্র ও বিদ্যালয় সূত্র জানায় , জেসমিন সুলতানা ২০১৩ সালের ২১ এপ্রিল রায়গড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। এক বছর বিদ্যালয়ে উপস্থিত থাকলেও এরপর ২০১৫ সালের ১২ নভেম্বর থেকে ৫ বছর ধরে বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত রয়েছেন। বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকার পরেও নিয়মিত মাসিক বেতনের টাকা উত্তোলন করে আসছেন। ২০১৭ সালের ১৫ জানুয়ারি ও ২০১৮ সালের ৫ সেপ্টেম্বর এ দুটি তারিখে জেসমিন সুলতানা সোনালী ব্যাংক ঢাকা দক্ষিণ শাখা থেকে মোট ৪লক্ষ টাকা উত্তোলন করেছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

এদিকে অভিযোগের পর জেলা শিক্ষা অফিস থেকে বিষয়টি তদন্ত করার জন্য বিয়ানীবাজার উপজেলা শিক্ষা অফিসার রুমান মিয়াকে দায়িত্ব দেয়া হলে তিনি মঙ্গলবার (৭সেপ্টেম্বর) বিদ্যালয় সরেজমিনে তদন্তে আসেন।

তদন্ত কর্মকর্তা রুমান মিয়া জানান, আমি এসে বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটি সদস্যদের বক্তব্য শুনেছি এবং বিদ্যালয়ের খাতাপত্র দেখেছি। প্রধান শিক্ষক জেসমিন সুলতানা বিদ্যালয়ে যে অনুপস্থিত তার সত্যতা পাওয়া গেছে। খুব শিগগিরই আমি এ বিষয়ে উধ্বর্তন কতৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট পাঠাবো।

এদিকে জেসমিন সুলতানা এখন কোথায় আছেন বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার বড় ভাই রায়হান আহমদের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, জেসমিন সুলতানা স্বামীর আবেদনের প্রেক্ষিতে ভিসা পেয়ে স্বপরিবারে আমেরিকাতে বসবাস করছেন।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আজিজুর রহমান খান জানান, বিদ্যালয়ের সংরক্ষিত তথ্যমতে প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন সুলতানা যোগদান করার পর থেকে মাঝেমধ্যে স্কুলে আসতেন। তিনি প্রায় ৫ বছর ধরে লাপাত্তা। শুনেছি স্বপরিবারে আমেরিকায় আছেন। তবে ২০১৭ সালে এসে ব্যাংক থেকে সরকারি বেতন উত্তোলন করার সময় কয়েকদিন বিদ্যালয়ে এসেছিলেন।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিয়তী রাণী চন্দের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, প্রধান শিক্ষিক অনুপস্থিতির বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে অনেক আগে জানানো হয়েছে। এছাড়াও প্রধান শিক্ষিকা জেসমিন বেগম আমাকে চাপ প্রয়োগ করে গ্রান্টার করে টাকা ঋণও উত্তোলণ করেছিলেন। কিন্তু এখন নিয়মিত কিস্তি না দেওয়ায় ব্যাংক কর্তৃপক্ষ আমাকে চাপ দিচ্ছে। আমায় উনি বিপদে ফেলে দিয়েছেন।

গোলাপগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার দেওয়ান নাজমুল আলম বলেন, জেসমিন সুলতানা কয়েক বছর আগে তৎকালীন শিক্ষা অফিসারের কাছ থেকে তিন মাসের চিকিৎসাজনিত ছুটি নিয়েছিলেন। এখন তিনি কোথায় আছেন আমার জানা নেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন