1. mdjoy.jnu@gmail.com : admin : Shah Zoy
  2. satvsunamgonj@gmail.com : Admin. :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১১:০৭ পূর্বাহ্ন
  •                          

হাওরাঞ্চলের কথা ইপেপার

ব্রেকিং নিউজ
সিলেট নাসিং হোস্টেল যেন মিনি কারাগার! পাসপোর্ট অফিসে কোন ধরনের হয়রানী সহ্য করা হবে না— যুগ্ম সচিব নাসরিন জাহান সিলেট মহানগরীর উপশহরে হাতুড়ে ডাক্তারের বিরুদ্ধে প্রতারনার অভিযোগে মামলা রুজু জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কৃষি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে— কৃষি মন্ত্রী সিলেটের সাপ্তাহিক বাংলার বারুদ পত্রিকার সাবেক প্রধান সম্পাদক ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি জহিরিয়া হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক রুহুম আমিন ছিলেন জ্ঞানের সাগর— স্মরণ সভায় বক্তারা মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে নানান অনিয়মের দায়ে আইসক্রিম উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা তাহিরপুরে কুকুরের কামড়ে নারী-পুরুষ ও শিশুসহ অন্তত ১৬ জন আহত, দ্রত ব্যবস্থা নেয়ার দাবী প্রকৌশলী হতে চায় শাহরিয়ার তায়্যিব টানা ৩য় বারের মতো শ্রেষ্ঠ অফিসার ইনচার্জ নির্বাচিত হলেন ওসি হারুনূর রশিদ চৌধুরী

ওসমানীনগরে যে কারণে হত্যা করা হয় বৃদ্ধ ব্রজেন্দ্রকে

Reporter Name
  • আপডেট করা হয়েছে রবিবার, ১৮ জুন, ২০২৩
  • ৫৪ বার পড়া হয়েছে

নিউজ ডেস্ক :: সিলেটের ওসমানীনগরে অটোরিক্সা চালক ব্রজেন্দ্র শব্দকর (৬০) হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। চাঞ্চল্যকর এ হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গত বুধবার (১৪ জুন) ও বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও ওসমানীনগর অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে ওসমানীনগর থানা পুলিশ।

রবিবার (১৮ জুন) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রহস্য উদঘাটনের বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ওসমানীনগর থানার মজলিশপুর গ্রামের মৃত ফিরোজ আলীর ছেলে মো. গোলজার আলী (২৭) এবং একই গ্রামের মৃত তাহির আলীর ছেলে শিপন মিয়া (২৭)।

পুলিশ সূত্রে জান যায়, শুক্রবার (৫ মে) বিকাল ৩টার দিকে উপজেলার প্রথমপাশা কবরস্থান সংলগ্ন কেওয়ালী রাস্তার পাশ থেকে ব্রজেন্দ্রের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। উদ্ধারের ৩দিন পর রবিবার (৭ মে) নিহতের স্ত্রী অনি শব্দকর ওসমানীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ব্রজেন্দ্র ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

পূর্বপরিচিত আসামি গোলজার ও শিপন তার অটোরিক্সাটি চুরির উদ্দেশ্যে ভাড়া নেয়। পরে উপজেলার ৪নং বুরুঙ্গা ইউনিয়নের অন্তর্গত প্রথমপাশা সাকিনে রাস্তার পাশে মাথায় আঘাত করে হত্যা করা হয় তাকে। হত্যার পর অটোরিক্সাটি বিক্রি করে টাকা দুইজনে ভাগ করে নেয়।

গ্রেফতারের পর আসামী শিপন মিয়ার দেওয়া তথ্যে ভিত্তিতে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্র ঘটনাস্থলের পাশের ঝোঁপ থেকে জব্দ করা হয় এবং আসামী মো. গোলজার আলী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন